Wednesday , June 26 2019

নকল শাকিবের ‘পাসওয়ার্ড’, ১০ লাখ টাকা ফেরত চাইছেন দর্শকরা

ঈদ উপলক্ষে সারাদেশে মুক্তি পেয়েছে তিনটি চলচ্চিত্র। যার মধ্যে দুটিই শাকিব খানের। ঈদের তিন ছবি হল ‘পাসওয়ার্ড’, ‘নোলক’ ও ‘আবার বসন্ত’। এরমধ্যে মালেক আফসারী পরিচালিত ছবি ‘পাসওয়ার্ড’ নিয়ে নকলের অভিযোগ উঠেছে। আর এই নিয়ে ক্ষেপেছে ভক্তরাও।ঈদের আগে থেকেই নানা উপায়ে দর্শকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে এসেছেন ‘পাসওয়ার্ড’ ছবির নির্মাতা মালেক আফসারীসহ ছবির সংশ্লিষ্টরা। ছবিটি ভারতীয় কিংবা তামিল ছবির নকল প্রমাণ করতে পারলে ১০ লাখ টাকা পুরস্কার দেবেন বলেও ঘোষণা দিয়েছিলেন তিনি।সন্দেহ নেই ঈদের তিন ছবির মধ্যে ব্যবসায় এগিয়ে আছে ‘পাসওয়ার্ড’। তবে অভিযোগ উঠেছে দক্ষিণ কোরিয়ান সিনেমা ‘দি টার্গেট’ থেকে নকল করে নির্মাণ করা হয়েছে এটি। অন্য জনপ্রিয় ছবির সঙ্গে গল্প ও অ্যাকশনের মিল খুঁজে পেয়েছেন দর্শকরা।

ছবিটি নিয়ে হতাশা প্রকাশ করে সায়েদ নাজমুস সাকিব ফেসবুকের একটি গ্রুপে লেখেন, ইন্ডাস্ট্রিও ছাড়বেন না, ১০ লাখ টাকাও দিবেন না। দেখা যাবে আমাদের অধিক চিৎকার চেঁচামেচির কারণে কাল সকালে তিনি “পাসওয়ার্ড ২- ইনটু দ্যা সুন্দরবান” সিনেমার ঘোষণা দিয়ে বসে আছেন।’

ফুয়াদ খন্দকার লেখেন, “পাসওয়ার্ড” এর খোঁজে তামিল থেকে কোরিয়া, চুরি বিদ্যা দেখিল বাঙালি নয়ন ভরিয়া।

জেরিন ইসলাম লিখেছেন, ”ফ্রেম টু ফ্রেম কপি!! কিভাবে এতো মিথ্যা চাপা মারলো অসুস্থ লোকটা!! ১০ লক্ষ টাকা কি পাওয়া যাবে? আর উনি কি ফিল্ম বানানো ফাইনালি ছেড়ে দর্শকদের মুক্তি দিবে?? রিমেইক মুভিতে আমার কোনো সমস্যা নাই কারণ অতীতে বাংলাদেশে অনেক ভালো ভালো ফিল্ম রিমেইক হয়েছে। কিন্তু এই রকম নোংরা চাপা কিংবা প্রচারণা কেউ করেছে বলে মনে পরেনা!! লোকটারে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি থেকে ব্যান করা উচিৎ।”

রহমান মতি লিখেছেন, ডিয়ার মালেক আফসারী, আপনি বলেছিলেন ‘পাসওয়ার্ড’ কোন মুভির কপি প্রমাণ দিতে পারলে ১০ লাখ টাকা পুরস্কার দেয়া হবে। ম্যালা টাকা। যমুনা টিভি বাদেও গ্রুপের সদস্যরা অলরেডি প্রমাণ করে ফেলেছে কোন মুভির কপি। এখন আপনার কথা রাখা উচিত কিন্তু। তাতে যদি অনেকের উপকার হয় মন্দ কি!
শাকিব খান ফিল্মসের প্রযোজনায় নির্মিত এ চলচ্চিত্রে শাকিবের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন বুবলী। এছাড়াও অভিনয় করেছন মিশা সওদাগর, ইমন, অমিত হাসান, ডন।